ভালো লাগার মত গল্প !

Total Views : 84
Zoom In Zoom Out Read Later Print

এক গ্রামে একজন কৃষক ছিলেন তিনি দুধ থেকে দই ও মাখন তৈরি করে বিক্রি ক’রতেন.. একদিন কৃষকের স্ত্রী’ মাখন তৈরি করে কৃষককে দিলেন বিক্রি ক’রতে কৃষক তা বিক্রি করার জন্য গ্রাম থেকে শহরের উদ্দেশ্যে রওনা হলেন মাখন গুলো গোল-গোল রোল আকৃতিতে রাখা ছিল


যার প্রত্যেকটির ওজন ছিল ১ কেজি করে.. শহরে পৌঁছে কৃষক প্রতিবারের ন্যায় পূর্ব নির্ধারিত দোকানে মাখন গুলো দিয়ে পরিবর্তে চা চিনি তেল ও তার সংসারের প্রয়জনীয় দ্রব্যাদি নিয়ে আসতেন আজ কৃষক চলে যাওয়ার পরে দোকানদার মাখনের রোল গুলো একটা একটা করে ফ্রিজে রাখার সময় ভাবলেন মাখনের ওজন সঠিক আছে কিনা আজ একবার পরীক্ষা করে দেখা যাক

মাখনের রোল গুলো ওজন ক’রতেই উনি দেখলেন মাখনের ওজন আ’সলে ১ কেজি নয় তা প্রতিটা আছে ৯০০ গ্রাম করে পরের সপ্তাহে আবার কৃষক উক্ত দোকানে মাখন বিক্রি ক’রতে গে’লেন দোকানের সামনে পৌঁছানোর স’ঙ্গে স’ঙ্গে দোকানদার কৃষকের উদ্দেশ্যে চি’ৎকার করে বলতে লাগলেন

‘বেরিয়ে যাও আমা’র দোকান থেকে এবার থেকে কোন বেঈ’মান চিটিংবাজে’র সাথে ব্যাবসা কর আমা’র দোকানে আর কোনদিন পা রাখবে না ৯০০ গ্রাম মাখন ১ কেজি বলে বিক্রি করা লোকটার মুখ আমি দে’খতে চাইনা কৃষক বিনম্র ভাবে কম্পিত স্বরে দোকানদারকে বললেন- দাদা! দয়া করে রাগ করবেন না

আ’সলে আমি একজন খুবই গরিব মানুষ দাড়িপাল্লার বাটখারা কেনার মতো পয়সা আমা’র নেই তাই আপনার থেকে প্রতিবার যে এক কেজি করে চিনি নিয়ে যেতাম সেটাই দাড়িপাল্লার একপাশে রেখে অন্য পাশে মাখনের রোল মেপে নিয়ে আসতাম।।আপনি অ’পরকে যেটা দেবেন সেটাই পরে আবার আপনার কাছে ফি’রে আসবে তা সেটা সম্মান হোক বা ঘৃ’ণা???? (সংগৃহিত)

See More

Latest Photos