নায়ককে খুঁজতে টুইটারে মাহি

Total Views : 183
Zoom In Zoom Out Read Later Print

দেশ–বিদেশের তারকা এবং সহকর্মীরা টুইটার ব্যবহার করলেও ফেসবুকের বাইরে কখনোই অন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চলচ্চিত্র নায়িকা মাহিয়া মাহিকে টানেনি।

 টুইটারে বিন্দু পরিমাণ আগ্রহ ছিল না। সেই মাধ্যমেই শতভাগ আগ্রহ নিয়ে রাতারাতি যুক্ত হলেন এই নায়িকা। সম্প্রতি পোল্যান্ডের একটি সিনেমা দেখে টুইটারে যুক্ত হওয়ার কথা জানালেন এই অভিনেত্রী।

'ইয়া, অ্যা'ম হেয়ার ফাইনালি'—এটাই ছিল এই নায়িকার টুইটারে যুক্ত হয়ে প্রথম কোনো টুইট। এর এক ঘণ্টা পরই তিনি আরেকটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে এই নায়িকা লিখেছেন, 'আমি প্রায় সারা রাত ব্যয় করেছি, কিন্তু তাকে খুঁজে পেলাম না।' টুইটারে কাকে খুঁজছেন এই অভিনেত্রী? কেনই–বা এত দিন পর টুইটারে আসা। কৌতূহলী হয়ে ফোন দিই। জিজ্ঞাসা করতেই ওপাশ থেকে মাহিয়া মাহির হাসি। হাসতে হাসতে বলেন, 'গতকাল রাতে একটি ছবি দেখেছি। ছবির নাম “৩৬৫ ডেজ”। এখানে অভিনয় করেছেন ইটালিয়ান অভিনেতা। তাঁর নাম মিশেল মোরন। পুরো ছবিতে এই নায়ককে এত ভালো লাগছে, আমি ছবি শেষ করে সঙ্গে সঙ্গে তাঁর খোঁজ শুরু করি। ফেসবুকে খুঁজে খুঁজে হয়রান হয়েছি, পাইনি। তখন আমার ভাবনায় আসে, সব তারকাই মোটামুটি টুইটার ব্যবহার করেন। এই নায়ককে ফলো করতেই টুইটারে যুক্ত হই।'

সেই নায়কের খোঁজে টুইটারে যুক্ত হলেও শেষ পর্যন্ত তাঁকে মন খারাপ করতে হয়। কারণ, তিনি প্রায় সারা রাত খুঁজেও কাঙ্ক্ষিত সেই নায়ককে টুইটারে পাননি। এই নায়কের আর কোনো ছবি নেই। তিনি একটিমাত্র ছবিই করেছেন। দুঃখ প্রকাশ করে এই ছবি সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, 'আমার সিনেমার চেয়ে হিরোটাকে বেশি ভালো লাগছে। এত সুন্দর অভিনয় সবকিছু, যে কারণেই আমি তাঁকে খুঁজতে টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলে বসেছি। কিন্তু দুঃখ একটাই, তাঁকে খুঁজে না পাওয়া। ছবিও করেছে একটি। আইএমডিবিতে দেখছি আরেকটি ছবিতে কাজ করেছে। সেই ছবির জন্য অপেক্ষা করছি।'

প্রায় তিন মাস শুটিং থেকে দূরে এই নায়িকা। তাঁর হাতে ছিল বেশ কয়েকটি ছবির কাজ। জুন মাস থেকে শুটিং শুরু হলেও এই নায়িকা এখনো শুটিং করতে চান না। প্রযোজক ও নির্মাতার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ হচ্ছে। স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চান আরও কিছুদিন। কারণ, করোনায় শুটিং করাটাও বেশ ঝামেলা বলে মনে হয় তাঁর কাছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'সিনেমা তো আসলে নাটক না। নাটকে লিমিটেড কিছু মানুষ থাকে। কিন্তু সিনেমায় অনেক মানুষের প্রয়োজন হয়। বিশাল টিম থাকে। এখানে শুটিংয়ে ডিসট্যান্স মেইনটেইন করা কতটা সম্ভব? আবার ছবিতে একই সঙ্গে ফাইট করতে হবে, গান করতে হবে, রোম্যান্টিক সিনও থাকবে, আবার মাকেও জড়িয়ে ধরে কাঁদতে হবে। এত কিছু মেইনটেইন করে কাজ করা সম্ভব নয়। যখন পরিস্থিতি ভালো হবে, তখনই শুটিং করব।'
করোনায় বাসায় বন্দী থাকতে প্রথম দিকে বিরক্ত লাগলেও এখন মানিয়ে নিয়েছেন এই তারকা। তাঁর সিনেমা, গল্পের বই, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটছে বাসায়। এখন বাইরে বের হওয়াটাই তাঁর কাছে মনে হয় আজব বিষয়। তবে মাঝেমধ্যে ঘরে মন না টিকলে গাড়ি নিয়ে একটু ঘুরে আসেন, এমনটাই জানালেন মাহিয়া মাহি। জানিয়ে রাখলেন, এখন থেকে ফেসবুকের পাশাপাশি টুইটারে তাঁকে নিয়মিত পাওয়া যাবে।

See More

Latest Photos